মৌলভীবাজার পৌরসভা সীমানাপ্রাচীর ভেঙে সড়কের জন্য জায়গা দিলেন এলাকাবাসী

ছোট একটা গলিপথ। দুইপাশে অনেকগুলো বাসাবাড়ি। নতুন নতুন বাসা উঠছে। পথটি দিয়ে রিকশাও স্বচ্ছন্দে চলতে পারে না। অনেকের আশঙ্কা ছিল দুর্যোগে অ্যাম্বুলেন্স, ফায়ার ব্রিগেডের গাড়ি ঢুকবে না। যে কেউ যেকোনো মুহূর্তে বিপদে পড়তে পারেন। সেই আশঙ্কার পরিণতি বাস্তবে দেখলেন এলাকার মানুষ। বছর দুই আগে ফায়ার ব্রিগেডের গাড়ি ঢুকতে না পারায় একটি বাসার দোতলার সবকিছু সবার চোখের সামনে পুড়ে ছাই হয়ে যায়।

মৌলভীবাজার শহরের ১ নম্বর ওয়ার্ডের ফাটাবিল এলাকার টিবি হাসপাতাল সড়কের লিংক রোড এটি। টিবি হাসপাতাল সড়ক থেকে ফাটাবিল এলাকার উত্তর প্রান্তে এসে সড়কটি মিলেছে। অগ্নিকাণ্ডের পর প্রায় দুই বছর ধরে সড়ক বড় করার চেষ্টা-তদবির এখন বাস্তবে রূপ নিচ্ছে। যাঁদের জায়গা ছাড়তে আপত্তি ছিল, তাঁরাও আর বাধা হয়ে থাকেননি। প্রায় ৩০টি বাড়ির মালিক স্বেচ্ছায় সীমানাপ্রাচীর ভাঙাসহ খালি জায়গা ছেড়েছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুর থেকে পৌরসভার উদ্যোগে এক্সকেভেটর ও শ্রমিক দিয়ে সীমানাপ্রাচীর ভেঙে সড়ক প্রশস্ত করার কাজ শুরু হয়েছে।

আজ শুক্রবার (২০ মে) সকালে টিবি হাসপাতাল সড়কের লিংক রোড এলাকায় গিয়ে দেখা গেছে, অনেকগুলো বাসাবাড়ির সীমানাপ্রাচীর ভেঙে ফেলা হয়েছে। ভেঙে ফেলা ইট-পাথর পড়ে আছে।

 

এই গলিপথটি বিভিন্ন স্থানে সাত থেকে ১০ ফুটের মতো প্রশস্ত ছিল। এখন প্রায় ৭০০ মিটার এলাকাজুড়ে সড়কটি ১৪ ফুট প্রশস্ত হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.