গোয়াইনঘাটের সেই অন্ধ হাফেজ পেলেন ঘরের চাবি

সিলেট প্রতিনিধিঃ

সিলেটের গোয়াইনঘাটে স্মরণকালের ভয়াবহ বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত লেঙ্গুড়া ইউনিয়নের আলীরগ্রাম গ্রামের অন্ধ হাফেজ আব্দুূল মালিকের বিধ্বস্ত ঘর নতুন করে নির্মাণের দায়িত্ব নিয়েছিলেন সিলেটের বিদায়ী পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ফরিদ উদ্দিন পিপিএম।

গত ২৯শে জুন বুধবার গোয়াইনঘাটে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত অসহায় মানুষজনের মধ্যে ত্রাণ বিতরণ শেষে সাংবাদিকদের মাধ্যমে বন্যায় বিধ্বস্ত তাঁর বাড়িঘরের চিত্র দেখে মর্মাহত হয়ে পুলিশ সুপার ফরিদ উদ্দিন পিপিএম অন্ধ হাফেজ আব্দুল মালিককে কাছে টেনে নিয়েছিলেন।

এসময় গণমাধ্যম কর্মীদের সামনে আব্দুল মালিককে নতুন ঘর তৈরি করে দেয়ার ঘোষণা দেন তিনি। অবশেষে সেই ঘোষণার  মাত্র ১ মাস দশ দিনের ভেতরে তিনি তাঁর কথা রাখলেন। গতকাল সেই অন্ধ হাফেজ আব্দুল মালিকের বাড়িতে এসে নতুন ঘরের চাবি তুলে দিলেন সিলেটের পুলিশ সুপার (সদ্য পদোন্নতি প্রাপ্ত অতিরিক্ত ডিআইজি) মোহাম্মদ ফরিদ উদ্দিন পিপিএম।
নতুন ঘর পেয়ে অন্ধ হাফেজ আব্দুূল মালিক ও তার স্বজনরা আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন। এসময় সেখানে এক আবেগঘন পরিবেশের সৃষ্টি হয়।

পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ফরিদ উদ্দিন পিপিএম বলেন, পুলিশ সব সময় মানুষের সেবায় নিয়োজিত থাকে। আমরা মানুষের জন্য ভালো কিছু করতে পারলে মনে প্রশান্তি পাই। আজ একজন কোলআনের হাফেজকে মাথাগোঁজার ঠাঁই দিতে পেরে সত্যিই ভালো লাগছে। মনে হচ্ছে সত্যিই ভালো কিছু করতে পেরেছি।
পরে পুলিশ সুপার ফরিদ উদ্দিন পিপিএম অন্ধ হাফেজ আব্দুল মালিকের নতুন ঘরে বসে কিছু সময় কাটান ও দোয়ায় শরিক হন।

এসময় গোয়াইনঘাট সার্কেল সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার প্রবাস কুমার সিংহ, গোয়াইনঘাট থানা অফিসার ইনচার্জ কেএম নজরুল, উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বাবু সুভাষ চন্দ্র পাল ছানা, লেঙ্গুড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মুজিবুর রহমান, সুবাস দাসসহ স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.