ইলেকট্রনিকস সামগ্রীর প্রতিষ্ঠানে ভোক্তা অধিকারের অভিযান

মৌলভীবাজার প্রতিনিধিঃ

জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের মৌলভীবাজার জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মো: আল-আমিন এর নেতৃত্বে র‌্যাব-৯ ফোর্সের সহযোগিতায় অভিযান পরিচালিত হয়।

বৃহস্পতিবার (০৪ আগস্ট ) মৌলভীবাজার বড়লেখা উপজেলার মধ্যবাজার, হাজিগঞ্জ বাজার, জলি ম্যানশনসহ বিভিন্ন জায়গায় অভিযান করা হয়।

সাম্প্রতিক সময়ে অতিরিক্ত গরম ও লোডশেডিং এর কারণে ইলেকট্রনিকস সামগ্রীর ব্যবসায়ীরা অতিরিক্ত দামে ফ্যান, চার্জ লাইট, চার্জার ফ্যান বিক্রয় করছেন এই ধরণের অভিযোগের প্রেক্ষিতে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর, মৌলভীবাজার জেলা কার্যালয় কর্তৃক আজকের অভিযান পরিচালিত হয়।

তদারকি অভিযানে অতিরিক্ত দামে ইলেকট্রনিকস পণ্য বিক্রয় করা, যথাযথভাবে ক্রয় ও বিক্রয় ভাউচার সংগ্রহ না করা, মেয়াদ উত্তীর্ণ প্রসাধনী বিক্রয় করা, অতিরিক্ত দামে সয়াবিন তেল বিক্রয় করা, দৃশ্যমান স্থানে মূল্য তালিকা প্রদর্শন না করাসহ বিভিন্ন অনিয়মের দায়ে মধ্য বাজারে অবস্থিত সুমাইয়া স্নাক এন্ড বেবি ফুড ষ্টোরকে ২ হাজার টাকা, জলি ম্যানশনে অবস্থিত হেলাল ফেন্সি ষ্টোরকে ৩ হাজার ৫ শত টাকা, হাজিগঞ্জ বাজারে অবস্থিত আহমদ ট্রেডার্সকে ৩ হাজার ৫ শত টাকা, কামরুল ইলেকট্রিককে ৩ হাজার ৫ শত টাকা জরিমানা আরোপ ও তা আদায় করা হয়।

মৌলভীবাজার জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মো: আল-আমিন বলেন আজকের অভিযানে সকল ইলেকট্রনিকস ব্যবসায়ীদের ন্যায্য দামে ইলেকট্রনিকস পণ্য বিক্রয় করা এবং ক্রয় ও বিক্রয় ভাউচার সঠিকভাবে সংরক্ষণ করার নির্দেশনা দেওয়া হয়।

তিনি আরও বলেন নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্য সামগ্রী ন্যায্য দামে প্রাপ্তি নিশ্চত করার লক্ষে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের অভিযান চলমান থাকবে। আজকের অভিযানে মোট ৪ টি প্রতিষ্ঠানকে সর্বমোট ১২ হাজার ৫ শত টাকা জরিমানা ও তা আদায় করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.