আসক ফাউন্ডেশন কাজ করবে বাস্তুহারা ছিন্নমূল বস্তিবাসীদের স্থায়ী আবাসন নিয়ে

বাংলাদেশ প্রতিক্ষণঃ
চট্টগ্রাম হাটহাজারীতে বাস্তহারা ছিন্নমুল বস্তিবাসীদের নিয়ে স্থায়ী আবাসনের ব্যবস্থা করার জন্য সরকারের প্রতি অনুরোধ জানিয়েছেন মানবাধিকার সংগঠন-আইন সহায়তা কেন্দ্র (আসক) ফাউন্ডেশনের অতিরিক্ত নির্বাহী পরিচালক খন্দকার সাইফুল ইসলাম সজল।
গত (১৯ মে) বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১১টায় হাটহাজারী চৌধুরী হাট সংলগ্ন ছিন্নমুল বস্তি পরিদর্শন শেষে আইন সহায়তা কেন্দ্র (আসক) ফাউন্ডেশন চট্টগ্রাম বিভাগীয় কার্যালয়ে বিকালে আইন সহায়তা কেন্দ্র (আসক) ফাউন্ডেশন ও বাংলাদেশ বাস্তহারা লীগের যৌন উদ্যোগে এক সভায় আইন সহায়তা কেন্দ্র (আসক) ফাউন্ডেশন চট্টগ্রাম বিভাগের সভাপতি মোঃ শাহাবউদ্দিন সভাপতিত্বে রফিকুল ইসলামের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত সভায় উপস্থিত ছিলেন, ফেডারেল অফ বাংলাদেশ জার্নালিস্ট অর্গানিজেশন এর মহাসচিব শামসুল ইসলাম, বাংলাদেশ বাস্তুহারা লীগের সভাপতি জানে আলম, ফেডারেল অফ বাংলাদেশ জার্নালিস্ট অর্গানিজেশন, চট্টগ্রাম বিভাগীয় সভাপতি শিব্বির আহমদ ওসমান, আনোয়ারা প্রেসক্লাবের আবদু নুর চৌধুরী, প্রকৌশলী কিবরিয়া,কেন্দ্রীয় পরিচালক তথ্য অনুসন্ধান জামাল চৌধুরী বিপ্লব, সহ-সভাপতি নাসির মজুমদার, সাংবাদিক ইসমাইল হোসেন ইমন, আসক চট্টগ্রাম মহানগর সভাপতি এয়ার মোহাম্মদ খোকন,আসক চট্টগ্রাম বিভাগীয় যুগ্ম সম্পাদক নাছির উদ্দিন নীরব, আসক চট্টগ্রাম মহানগর সাধারণ সম্পাদক মোঃ নাছির উদ্দিন মোল্লা, সাংবাদিক রানা প্রমুখ।
আসক ফাউন্ডেশনের অতিঃ নির্বাহী খন্দকার সাইফুল ইসলাম সজল বলেন, এখানে যারা বাস করেন তাদের কেউ গৃহপরিচারিকার কাজ করেন, কেউ রিকশা চালান, কেউ বুট পালিশ করেন। একেবারেই বাস্তুহারা ছিন্নমূল মানুষগুলো বস্তিতে বসবাস করেন। আজকে স্বাধীনতার ৫০ বছর হয়ে গেল, দুর্ভাগ্য আমরা প্রতিটি মানুষের জন্য অন্ন-বস্ত্র, বাসস্থানের ব্যবস্থা করতে পারিনি। তিনি আরো বলেন, আমার কথা হলো- সরকারের প্রায়োরিটি হওয়া উচিত এদের স্থায়ীবাসস্থানের ব্যবস্থা করা। ছিন্নমূল মানুষগুলোর জন্য কেউ কোনো কার্যকরী ব্যবস্থা গ্রহণ করছে না। কঠিন কাজ তো না। বাংলাদেশে সরকারের যে জমি, সেই জমিগুলোইতো বরাদ্দ করা যায়। তাদের স্থায়ী বাসস্থানের ব্যবস্থা করা যায়। সরকারের সাথে আলোচনা করে আইন সহায়তা কেন্দ্র (আসক) ফাউন্ডেশন ও বাংলাদেশ বাস্তহারা লীগের যৌথ উদ্যোগে বস্তিবাসীদের স্থায়ী আবাসনের ব্যবস্থা নেওয়া জন্য কাজ করে যাবে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.