স্মরণকালের ভয়াবহ বন্যায় গোয়াইনঘাটে বন্যার্তদের পাশে ওসি নজরুল

স্টাফ রিপোর্টারঃ

স্মরণকালের ভয়াবহ বন্যায় গোয়াইনঘাটের ১২টি ইউপির মধ্যে ৬নং ফতেপুর ছাড়া সবকটি তলিয়ে যায়। ২৪ ঘণ্টায় ডুবে যায় হাজার হাজার মানুষের বাড়িঘর। পানিবন্দি হয়ে পড়েন লাখো মানুষ। বন্যাদুর্গত এসব অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ান গোয়াইনঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কেএম নজরুল। পুলিশের একাধিক টিম নিয়ে রাত-দিন পানিবন্দি মানুষকে উদ্ধার করেন তিনি। আশ্রয়কেন্দ্রে পৌঁছে দেন খাবার। পরবর্তীতে জেলা পুলিশের সহযোগিতায় শুরু করেন শুকনো খাবার, রান্না করা খাবার, বিশুদ্ধ খাবার পানি, মোমবাতি, পানি বিশুদ্ধ করণ ট্যাবলেট, খাওয়ার স্যালাইনসহ দুর্যোগকালীন ঔষধপত্র বিতরণ। এছাড়া থানা পুলিশসহ উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ২০টি রেসকিউ টিম গঠন করে উদ্ধার তৎপরতা চালান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তাহমিলুর রহমান। প্রশাসনের পাশাপাশি বিভিন্ন সামাজিক সংগঠন, স্কাউটসহ সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরাও একসাথে নামেন উদ্ধার তৎপরতায়।
এ ব্যাপারে গোয়াইনঘাটের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কেএম নজরুল বলেন, আমরা প্রথমে পানিবন্দি হয়ে পড়া মানুষজনকে উদ্ধারের জন্য মাঠে নামি এবং তাদেরকে উদ্ধার করে বিভিন্ন আশ্রয়কেন্দ্রে নিয়ে আসি। পরবর্তীতে রান্না করা খাবার এবং শুকনো খাবারসহ সব ধরনের মানবিক ত্রাণ সহায়তায় পুলিশ বিভাগ সার্বক্ষণিকভাবে কাজ করে যাচ্ছে।

আমাদের এসব কাজে সব সময় খোঁজ খবর এবং পরামর্শ দিয়ে যাচ্ছেন সিলেটের পুলিশ সুপার ফরিদ উদ্দিন পিপিএম স্যার। পুলিশের আইজিপি, সিলেট জেলা পুলিশ, বিভিন্ন ব্যক্তি, শিল্প প্রতিষ্ঠান, সামাজিক সংগঠন গোয়াইনঘাটের বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত মানবিক সহযোগিতা নিয়ে পাশে দাঁড়ান। আমাদের নিকট তাদের পাঠানো ত্রাণ সামগ্রী উপযুক্ত ত্রাণ প্রত্যাশীদের নিকট পৌঁছে দিতে গোয়াইনঘাট থানা পুলিশ সর্বোচ্চ স্বচ্ছতার পরিচয় বহন করে যাচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.