শ্রীমঙ্গলে ইংল্যান্ড প্রবাসীর প্রকল্পের সীমানা প্রাচীর ভেঙ্গে ফেলার অভিযোগ

বাংলাদেশ প্রতিক্ষণ ডেস্কঃ

মৌলভীবাজারে শ্রীমঙ্গল উপজেলার সিন্দুর খাঁন ইউনিয়নের সাইটুলা বস্তি এলাকায় ইংল্যান্ড প্রবাসী জাহাঙ্গীর খাঁন এর নিজ জমিতে বেকারত্ব দূরীকরনের লক্ষ্যে প্রাঙ্গন এগ্রো এন্ড ফিশারীজ লিঃ ইউনিট ০১/০২ নামে একটি প্রকল্প করার উদ্যোগ নেন।

ইংল্যান্ড প্রবাসী জাহাঙ্গীর খাঁনের প্রাঙ্গন এগ্রো এন্ড ফিশারীজ লিঃ ইউনিট ০১/০২ নামে প্রকল্পের সীমানা প্রাচীর রাতের আধাঁরে দূষ্কৃতিকারীরা ভেঙ্গে ফেলার অভিযোগ উঠেছে।

উপজেলার সিন্দুর খাঁন ইউনিয়নের সাইটুলা বস্তি এলাকায় ইংল্যান্ড প্রবাসী জাহাঙ্গীর খাঁন নিজেস্ব জমিতে এলাকার উয়ন্নের লক্ষ্যে ৩৫ একর জমি নিয়ে প্রাঙ্গন এগ্রো এন্ড ফিশারীজ লিঃ ইউনিট ০১/০২ নামে একটি প্রকল্প করার উদ্যাগে নিলে এলাকার কিছু দূষ্কৃতিকারী রাতের আধাঁরে কোম্পানি সীমানা প্রাচীরের প্রায় ১৫০ থেকে ২০০ টি পিলার ভেঙ্গে মাটিতে ফেলে দিয়েছে।

গত মঙ্গলবার (১০ মে) দুপুরে সাইটুলা বস্তিতে সরেজমিনে গিয়ে দেখায় যায় যে প্রস্তাবিত জায়গাতে প্রকল্পের সীমানা প্রাচীরের শতাধিক’র উপরে পিলার ভেঙ্গে উপড়ে পেলেছে এলাকার কে বা কারা।

এলাকার মাহমুদ মিয়া ও ইব্রাহিম খলিল জানান- “জাহাঙ্গীর খাঁন সব সময় এলাকার মানুষের জন্য ভালো কিছু করার চেষ্টা করেন, তিনি এলাকার অনেক পরিবারের দুঃখে সুখে পাশে থাকেন। সেই লক্ষ্যে তিনি এলাকার উন্নয়নের জন্য একটি প্রাঙ্গন এগ্রো এন্ড ফিশারীজ লিঃ ইউনিট ০১/০২ নামে কোম্পানি করার পরিকল্পনা করেছেন। যাতে এলাকায় কর্মসংস্থান সৃষ্টি হয়। যে বা যারাই এমন ঘৃণ্য কাজ করেছে, তারা এলাকার ভালো চায় না। এই ঘৃণ্য অপরাধীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে আইনের আওতায় আনা হোক।”

কোম্পানি তৈরির আগেই প্রবাসী জায়গার সীমানা প্রাচীরের সীমানা পিলার ভেঙ্গে উপড়ে ফেলা নিয়ে এলাকায় ক্ষোভ বিরাজ করছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ব্যক্তি জানান- “এলাকায় কিছু দুষ্টু লোক আছে যারা চায়না এলাকায় ভালো কিছু হোক। তাদের নানা অপকর্মে এলাকার মানুষ অতিষ্ঠ। ”

এব্যাপারে ইংল্যান্ড প্রবাসী জাহাঙ্গীর খাঁন বলেন- “আমি এলাকার মানুষের জন্য আমার নিজের জমিতে এলাকার মানুষের বেকারত্ব দূর করনের জন্য ৩৫ একর জায়গাতে প্রাঙ্গন এগ্রো এন্ড ফিশারীজ লিঃ ইউনিট ০১/০২ নামে একটি কোম্পানির কাজ হাতে নিয়েছি। এবং বিদেশী বিনিয়োগ করার চিন্তা করি কিন্ত প্রকল্পের কাজ হাতে নেওয়ার আগেই আমার জায়গার সীমানা প্রাচীর পিলার ভেঙ্গে উপড়েঁ ফেলছে এলাকার কিছু দূষ্কৃতিকারী।”

তিনি আরও বলেন- “আমি এই কোম্পানি সুপ্রতিষ্ঠিত করতে এলাকার লোকজন সহ স্থানীয় প্রশাসনের সহযোগিতা কামনা করছি।”

Leave a Reply

Your email address will not be published.