লক্ষ্মীপুরে মাদ্রাসাছাত্রী হত্যায় ৪ জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে মাদ্রাসাছাত্রী রোজিনা আক্তারকে হত্যার দায়ে ৪ জনের যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে দণ্ডপ্রাপ্তদের প্রত্যেককে আরো ১০ হাজার টাকা জরিমানা এবং অনাদায়ে আরো এক বছরের সশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করা হয়। আজ বুধবার দুপুরে জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক রহিবুল ইসলাম এ রায় দেন।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন আনোয়ার হোসেন কৈয়লা, আখিঁ আক্তার রুমা, হুমায়ুন কবির ও মো. বাহার। এর মধ্যে আনোয়ার ও আঁখি আদালতে উপস্থিত ছিলেন। অপর দুইজন পলাতক রয়েছে।
আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০১৬ সালের ১১ ডিসেম্বর জেলার রায়পুর পৌরসভার পশ্চিম কেরোয়া এলাকার মাদ্রাসা ছাত্রী রোজিনা পরীক্ষা শেষে বিকেলে বাসায় ফিরছিলেন। এসময় পুরাতন পৌরসভা কার্যালয় ভবনের সামনের সড়কে রোজিনার প্রেমিক আনোয়ারের সহযোগী আঁখি অপেক্ষা করছিলেন। আনোয়ারের কাছ থেকে ৫ হাজার টাকার নিয়ে আঁখি রোজিনাকে ফুসলিয়ে পার্শ্ববর্তী বাগানের দিকে নিয়ে যায়। সেখানে আনোয়ারসহ আরো তিন সহযোগী ছিল। এক পর্যায়ে ওই ছাত্রীকে বিয়ে করার প্রস্তাব দেয় আনোয়ার। রোজিনা এ প্রস্তাব প্রত্যখ্যান করলে তারা ধস্তাধস্তি করে অন্যদের সহযোগীতায় রোজিনাকে গাছের সঙ্গে গলার ওড়না পেছিয়ে শ্বাসরোধে হত্যা করে, পরে তার মরদেহ বাগানে ফেলে রেখে পালিয়ে যায়। পরদিন দুপুরে স্থানীয় লোকজন মরদেহটি দেখে পুলিশকে জানায়। খবর পেয়ে পরিবারের লোকজন এসে মরদেহটি সনাক্ত করে।

এ ঘটনায় ছাত্রীর মা মনোয়ারা বেগম বাদী হয়ে থানায় অজ্ঞাতনামা আসামিদের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের করেন। পরে পুলিশ তদন্ত শেষে ২০১৭ সালের ২৮ জুন ৪ জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করে। দীর্ঘ শুনানি শেষে আদালত এ রায় দেন। রায়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেন লক্ষ্মীপুর জজ আদালতের সরকারি কৌশুলী অ্যাডভোকেট জসীম উদ্দিন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.