মৌলভীবাজারে বন্যার্তদের মধ্যে বাংলাদেশ পুলিশের আইজিপির পাঠানো ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ

স্টাফ রিপোর্টারঃ

ভারীবৃষ্টি ও উজানের ঢলে সৃষ্ট সাম্প্রতিক বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত মৌলভীবাজারের বিভিন্ন উপজেলার বন্যা দুর্গত মানুষের মধ্যে বাংলাদেশ পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. বেনজীর আহমেদ, বিপিএম (বার) পাঠানো ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করেছেন সিলেট রেঞ্জের মাননীয় ডিআইজি মফিজ উদ্দিন আহম্মেদ পিপিএম।

বুধবার (২৯ জুন) বেলা ১২ ঘটিকায় পুলিশ সুপার জনাব মোহাম্মদ জাকারিয়া সহ জেলার উর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তাদের নিয়ে ডিআইজি মৌলভীবাজার জেলার বন্যা কবলিত বিভিন্ন এলাকা ও আশ্রয়কেন্দ্র পরিদর্শন করেন।
পরে কুলাউড়া থানার উত্তর বাজার এলাকার বন্যা দুর্গত ১৫০ টি পরিবারের মধ্যে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করেন।

তারপর জুড়ী উপজেলার বেলাগাঁও ও নোয়াগাঁও উচ্চ বিদ্যালয়ে আশ্রিত ১৫০ টি বানভাসি পরিবার ও বিকাল ৩ ঘটিকায় বড়লেখা উপজেলার শ্রীরামপুর গ্রামের ৩৫০ টি বন্যা ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারসহ মোট ৬৫০টি পরিবারের মধ্যে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করেন

 

বিতরণকৃত ত্রাণ সামগ্রীর মধ্যে ছিল চিড়া, বিস্কুট, চিনি, দুধ, মোমবাতি, খাবার স্যালাইন, পানি বিশুদ্ধকরণ ট্যাবলেট, ঔষধ, দিয়াশলই ও খাবার প্লেট।

ত্রাণ বিতরণ শেষে ডিআইজি বলেন, বাংলাদেশ পুলিশ আইনশৃঙ্খলা রক্ষার পাশাপাশি যেকোনো দুর্যোগ দুঃসময়ে মানুষের পাশে দাঁড়ায়। এবারের ভয়াবহ বন্যায় পুলিশের পক্ষ থেকে বন্যা দুর্গত সিলেট বিভাগের বিভিন্ন এলাকায় ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। এরই ধারাবাহিকতায় আজ মৌলভীবাজার জেলার কুলাউড়া, জুড়ী, ও বড়লেখার ভানবাসী মানুষের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করা হয়েছে।

উল্লেখ্য বন্যা মোকাবিলায় মৌলভীবাজার জেলা পুলিশের পক্ষে থেকে ইতিপূর্বে ৪৫০০ প্যাকেট ত্রাণ সামগ্রী, ৭৯০০ প্যাকেট শুকনো খাবার, পানি বিশুদ্ধকরণ ট্যাবলেট, খাবার স্যালাইন সহ প্রয়োজনীয় ঔষধ বিতরণ করা হয়েছে। এছাড়াও বিভিন্ন সময় বন্যা দুর্গত এলাকায় ১০ হাজার মানুষের মধ্যে রান্নানকরা খাবার বিতরণ করা হয়েছে।
মৌলভীবাজার জেলা পুলিশ বন্যা কবলিত এলাকার আইনশৃঙ্খলা ও পানিবন্দি অসহায় মানুষের জন্য আন্তরিকতার সাথে কাজ করে যাচ্ছে। জেলার বন্যার্তদের উদ্বার ও সহায়তার জন্য “বন্যা মনিটরিং সেল” সহ প্রতিটি থানায় “কুইক রেসপন্স টিম” গঠন করা হয়েছে।

বন্যা দুর্গত এলাকায় ত্রাণ সামগ্রী বিতরণের সময় আরো উপস্থিত ছিলেন মৌলভীবাজার জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (এডমিন এন্ড ফাইন্যান্স) হাসান মোহাম্মদ নাছের রিকাবদার, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) জনাব এ,বি,এম, মুজাহিদুল ইসলাম পিপিএম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (কুলাউড়া সার্কেল) জনাব সাদেক কাউসার দস্তগীর, কুলাউড়া থানার অফিসার ইনচার্জ জনাব মোঃ আব্দুস ছালেক, জুড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ জনাব সঞ্জয় চক্রবর্তী ও বড়লেখা থানার অফিসার ইনচার্জ জনাব জাহাঙ্গীর হোসেন প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.