মাজারের পুকুরে ভেসে উঠা মাথার পরিচয় মিলেছে

শায়েস্তাগঞ্জ প্রতিনিধিঃ

হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জে মাজারের পুকুরে দেহবিহীন একটি মাথা ভেসে ওঠে। সেই মাথার পরিচয় শনাক্ত হয়েছে। তিনি পৌর এলাকার জঙ্গল বহুলা গ্রামের মারফত উল্লার ছেলে কদর আলী।

রোববার (৩ জুলাই) সকাল ১০টায় উপজেলার ঐতিহ্যবাহী দাউদনগর বন্দেগী শাহ সৈয়দ দাউদ (রহ.) ও বন্দেগী সৈয়দ মহিব উল্লা (রহ.) মাজারের গজার মাছের পুকুরে পুরুষের দেহবিহীন মাথা পানিতে ভেসে উঠে।

এ ঘটনা স্থানীয় লোকজন পুলিশকে জানায়। খরব পেয়ে শায়েস্তাগঞ্জ থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে দেহবিহীন মাথা উদ্ধার করে সুরতহাল করে ময়নাতদন্তের জন্য হবিগঞ্জ আড়াইশ শয্যা হাসপাতালে পাঠায়।

দেহবিহীন মাথা দেখার জন্য এলাকার শত শত মানুষ পুকুরপাড়ে ভিড় জমান।

শায়েস্তাগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অজয় চন্দ্র দেব বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, খণ্ডিত মাথার সুরতহাল শেষে ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

তিনি আরও জানান, শনিবার (২ জুলাই) হবিগঞ্জ সদর উপজেলার মাছুলিয়া এলাকা থেকে উদ্ধার হওয়া মাথাবিহীন দেহ উদ্ধার হয়। এটি ওই দেহের খণ্ডিত মাথা বলে নিশ্চিত করেছেন নিহতের পরিবার এবং সদর থানা পুলিশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.