মনপুরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ওপেন নিলাম নামে গোপন নিলাম

সরকারের রাজস্ব ফাঁকি

 

ভোলা মনপুরা প্রতিনিধিঃ

ভোলা জেলা মনপুরা উপজেলার ১৩নং উত্তর চরফৈয়জুদ্দীন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ওপেন নিলাম নামে গোপন নিলাম দেন উপজেলা ভারপ্রাপ্ত প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মোঃমিজানুর রহমান।

ভোলার মনপুরা উপজেলার ১৩নং উত্তর চরফৈয়জুদ্দীন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের একটি পুরাতন টিনসিড ভবনটি কত কয়েক বছর যাবত ক্লাসের অনুপযোগী রয়েছে। পুরাতন ভবনটির স্থলে নতুন একটি ভবন হওয়ার কথা, নতুন ভবনের সামগ্রী ও এনেছে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান। পুরাতন ভবনটির কিছু অংশ ভেঙ্গে নিয়ে যায় ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানের লোকজন।

গত ১৪ আগষ্ট রোজ শনিবার বিকাল ৪ টায় ওপেন জন্য নিলামে ডাক দেন, মনপুরা সরকারি প্রাথমিক ভারপ্রাপ্ত শিক্ষাঅফিসার মোঃমিজানুর রহমান, নিলামের স্হান দেওয়া হয় উপজেলা থেকে প্রায় ৫ কিলোমিটার দূরে স্কুল প্রাঙ্গণে। নিলামে অংশগ্রহণের জন্য লোকজন উপস্থিত হলে শিক্ষাঅফিসার ও ঠিকাদারগন মিলে স্কুলস্থল থেকে চলে যায় উপজেলা। পরে শিক্ষাঅফিসারের কাছে জানতে চাইলে তিনি জানান, উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নিষেধ আছে।

নিলামে অংশগ্রহণ কারীগন ব্যক্তিগন হলো মোঃ নুরনবী বাহার,মোঃমিজানুর রহমান জুয়েল , নেছারউদ্দীন, ৭নং ওয়ার্ড মেম্বার, শামচুউদ্দীন সাগর।

গোপনে নিলাম দিয়ে সরকারের রাজস্ব ফাঁকি দিলেন মনপুরা উপজেলা ভারপ্রাপ্ত প্রাথমিক শিক্ষাঅফিসার মিজানুর রহমান নিজের পকেট ভারি করলেন, বৈশ্বিক অর্থনৈতিক মন্দা সময়ে সরকারের রাজস্ব বৃদ্ধি সহয়তা না করে নিজের অবস্থা উন্নতি নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন। পুরাতন স্কুলভবনটি ভাঙ্গার ব্যাপারে ভারপ্রাপ্ত শিক্ষাঅফিসার মিজানুর রহমানের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন আমি জানিনা, উপজেলা নির্বাহী অফিসার স্যার জানেন। আমি এই ব্যাপারে জানিনা। চরফ্যাশন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ভারপ্রাপ্ত মনপুরা নির্বাহী কর্মকর্তা আল নোমান স্যার জানান তিনি এই ব্যাপারে কিছু জানেন না।

Leave a Reply

Your email address will not be published.