বড়লেখা পয়লোয়ান বাড়ি এসোসিয়েশন ইউএসএ ইনক এর বনভোজন অনুষ্ঠিত 

শাহরিয়ার শাকিল, বড়লেখা প্রতিনিধি

মৌলভীবাজারের বড়লেখা উপজেলার পয়লোয়ান বাড়ি এসোসিয়েশন (ইউএসএ) ইনক এর আয়োজনে প্রতিবছরের ন্যায় এবারো বিভিন্ন আয়োজনের মধ্য দিয়ে বার্ষিক বনভোজন অনুষ্ঠিত হয়েছে। উক্ত বার্ষিক বনভোজনে উপস্থিত ছিলেন পয়লোয়ান বাড়ি এসোসিয়েশন ইউএসএ ইনক এর উপদেষ্টা আছাবুর রহমান, আজাদ উদ্দিন, আবু ছায়িদ বাবুল, ফখরুল হোসেন। আহমদুল হক কোনু, তুতিউর রহমান।

অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন পয়লোয়ান বাড়ি এসোসিয়েশন ইউএসএ ইনক এর প্রেসিডেন্ট মুহাম্মদ আবু সায়েম, সাধারণ সম্পাদক মুনিমুর রহমান। সহ-সভাপতি আবুল হাসনাত।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আতিউর রহমান।

শীত হোক বা গরম, যে কোনো এক সময়ে পরিবারের সবাইকে নিয়ে বনভোজনে যাওয়ার মজাই আলাদা, নিত্য দিনের কাজ পড়াশোনা সব ভুলে বন্ধু বান্ধব,আত্মীয় স্বজনদের সাথে আনন্দে মেতে ওঠার আরেক নাম বনভোজন বা চড়ুইভাতি। কিন্ত আমরা সকলে বর্তমানে যে যার জীবনে অত্যন্ত ব্যস্ত। অন্য কারো জন্য তো দূর কখনো কখনো আমরা নিজেদের জন্যই সময় বার করে উঠতে পারিনা, কিন্তু শুধু মাত্র প্রতিদিনের ব্যস্ততা জীবনকে ঘিরে থাকলে মানুষের জীবন নিরস হয়ে উঠতে পারে। আর একটি নিরস জীবনে গতিময়তা থাকলে ও প্রানবন্ততা থাকে না। সেই প্রাণহীন জীবনে রোজকার ইদুঁর দৌড়ে মানুষ অন্ধকারের অতলে হারিয়ে ফেলে। সে কারনে মাঝে মাঝে এই চুড়ান্ত ব্যস্ততা থেকে মুহূর্তের বিরতি নিয়ে প্রয়োজন নিজেকে সময় দেওয়ার এবং বন্ধুবান্ধব, আত্নীয়স্বজন সকলের সাথে সময় কাটানোর। এর দ্বারা মানুষের মন যেমন শুষ্কতার হাত থেকে রক্ষা পায়, তেমনি সমাজে স্বাভাবিক সামাজিক বন্ধন বজায় থাকে। তাইতো প্রতিবছরের ন্যায় এবছরেও পয়লোয়ান বাড়ি এসোসিয়েশন ইউএসএ ইনক এর আয়োজনে বনভোজন অনুষ্ঠিত হয়েছে, প্রতিবছরের মত এবছর ও বনভোজনে রয়েছিলো বিভিন্ন ধরণের খেলাধুলা ও পুরুষ্কার বিতরণ।

খেলাধুলা শেষে প্রথম পুরুষ্কার অর্জন করেছেন, জুবায়ের আহমেদ, ২য় পুরুষ্কার পেয়েছেন আকিফ আহমেদ, ৩য় পুরুষ্কার পেয়েছেন মুহাম্মদ আবুল হাসনাত।

অন্যনাদের মধ্যে পুরুষ্কার পেয়েছেন, মুনিম আহমেদ, সবুজ আহমেদ, ফয়সাল আহমেদ, আনিকা বেগম,নাজমা বেগম, লোকমান আহমেদ প্রমুখ।

অনুষ্ঠান শেষে পয়লোয়ান বাড়ি এসোসিয়েশন ইউএসএ ইনক এর নেতৃবৃন্দ বলেন প্রতিবছরের ন্যায় এ বছরে যেমন আমরা বনভোজন এর আয়োজন করেছি ইনশাআল্লাহ আগামীতে ও আমাদের এ বনভোজন অব্যাহত থাকবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.