বটিয়াঘাটায় সংবাদিকদের উপর হামলয় থানায় মামলা

খুলনা প্রতিনিধি ->>

বটিয়াঘাটা উপজেলার এক চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী ও ইয়াবা সেবনকারী বাহিনী কর্তৃক বটিয়াঘাটা প্রেসক্লাবের সাংবাদিকদের উপর হামলার ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। মামলা নং- ১৫/৭৫। তারিখ ১৯ জুন রবিবার। ঘটনাটি ঘটেছে,গত ১৫ জুন দুপুর অনুমান সাড়ে বারটার সময় বটিয়াঘাটা চলন্তিকা ভবনের নিচে। হামলার ঘটনায় ঐ সন্ত্রাসী মাদক ও ইয়াবা সেবনকারী কথিত প্রতাপ ঘোষ সহ তার বাহিনীরের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের
করেন, বটিয়াঘাটা প্রেসক্লাবের পক্ষে ক্লাবের সভাপতি অধ্যাপক এনায়েত আলী বিশ্বাস।
সৃত্রে প্রকাশ,গত ১৫ জুন ২০২২ তারিখ দুপুর অনুমান সাড়ে বারোটার দিকে লোকমুখে সভাপতি এনায়েত আলী বিশ্বাস খবর পায়, মাদকখোর ও ইয়াবা ব‍্যাবসায়ী প্রতাপ ঘোষ ও তার সহযোগী গডফাদার ভূমিদস‍্যু,পিন পাচারকারী,গাজা ব‍্যাবসায়ী,জমির দালাল,জলমা চক্রাখালী এলাকার ইন্দ্রজিত টিকাদার,বটিয়াঘাটা এলাকার প্রতাপ ঘোষ,পরাগ রায়,শাওন হাওলাদার,মোস্তফা বিল্লাল সহ অজ্ঞাতনামা ৪/৫ জন সন্ত্রাসী ও মাদক ব‍্যাবসায়ীরা বটিয়াঘাটা চলন্তিকা ভবনের সামনে সাংবাদিক মোঃ কবীর আহম্মেদ খান ও মনিরুজ্জামান কে মারপিট করছে। এ সংবাদ পেয়ে প্রেসক্লাবের সভাপতি এনায়েত আলী বিশ্বাস চলন্তিকা ভবনে গিয়ে দেখে সন্ত্রাসীরা তাদেকে পারপিট করছে। এসময় সে অন‍্যান‍্য সকল সাংবাদিকদের খবর দেয়। পরে খবর পেয়ে বটিয়াঘাটা প্রেসক্লাবের সকল সাংবাদিকরা ঘটনাস্থলে এসে আহত অবস্থায় তাদেরকে উদ্ধার করে। এসময় উভয় পক্ষের মধ্যে হাতাহাতির এক পর্যায় বেশকিছু সাংবাদিক আহত হয়। পরে তাদেকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। উক্ত মাদকখোর ও মাদক ব‍্যাবসায়ীদের হাত থেকে সাংবাদিক কবীর আহমেদ খান ও মোঃ মনিরুজ্জামান মনিকে উদ্ধারের সময় গুরুত্ব তিন জন সাংবাদিক আহত হয়। এরা হলেন,বটিয়াঘাটা প্রেসক্লাবের সহ সভাপতি হিরামন মন্ডল সাগর,সাধারণ সম্পাদক মহিদুল ইসলাম শাহীন,কবীর খান সহ আরো অনেকে।
হামলাকারীরা এসময় কবীর খানের পকেটে থাকা নগদ টাকা,মানিবেগে থাকা মূল্যবান কাগজপত্র,একটি টাচ ফোন,হাতে থাকা একটি ঘড়ি,একটি স্বর্নের চেইন ছিনিয়ে দেয়। এঘটনায় বটিয়াঘাটা থানায় মামলা হলেও এখন পযর্ন্ত আসামদের আটক করতে পারিনি পুলিশ। বটিয়াঘাটা থানা অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ শাহাজালাল বলেন, মামলা হয়েছে,তদন্ত পূর্বক আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
অন‍্যদিকে মাদকখোর সন্ত্রাসী বাহিনী কর্তৃক হামলার ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করেন বিভিন্ন শ্রেণী পেশাজীবীর লোকজন সহ বিভিন্ন সংগঠন। আসামীদের গ্রেপ্তার পূর্ব আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছেন বটিয়াঘাটা ক্লাবের সকল
সাংবাদিকবৃন্দ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.