পর্যটকদের কাছে বেশি দামে পণ্য বিক্রি:কুয়াকাটায় ভোক্তার জরিমানা

 

ডেস্ক রিপোর্ট

পদ্মা সেতু উদ্বোধনের পরে কুয়াকাটায় এবছর পর্যটকদের উপচে পড়া ভিড়ের সুযোগে অসাধু ব্যাবসায়ীরা এসব করছে।

বুধবার (১৩ জুলাই) বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সার্বিক তত্ত্বাবধানে এবং জাতীয় ভোক্তা-অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অর্পিত ক্ষমতাবলে, জেলা প্রশাসক নির্দেশনায়/উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার সহযোগিতায় পটুয়াখালী জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ সেলিম – এর নেতৃত্বে কলাপাড়া উপজেলার কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকত এলাকায় পরিচালিত অভিযানে ভোক্তা-অধিকার সংরক্ষণ আইন, ২০০৯ লঙ্ঘনজনিত কারণে ০৩টি প্রতিষ্ঠানকে ভোক্তা-অধিকার সংরক্ষণ আইন, ২০০৯ অনুযায়ী ৪৫,০০০/-(পয়তাল্লিশ হাজার) টাকা জরিমানা আরোপ ও আদায় করা হয়।

এসময় বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে দেখা যায় মূল্য তালিকায় নির্ধারিত দামের চেয়ে বেশি দামে পণ্য বিক্রি করা হচ্ছে। নোংরা পরিবেশে খাদ্যপণ্য উৎপাদন করা হচ্ছে। আচারের দোকানে মেয়াদোত্তীর্ণ পণ্য বিক্রির প্রস্তাব করা হচ্ছে বিধায় জরিমানা করা হয়।

এছাড়াও ট্যুরিসৃট স্পটে বেশকিছু অফারদাতাদের দেখা যায় যারা বিভিন্ন অফার দিয়ে পর্যটকদের হয়রানি করছে। এদেরকে কঠোর ভাবে সতর্ক করা হয়।

এছাড়াও অন্যান্য পণ্য ন্যায্য মূল্যে বিক্রি সহ ব্যবসায়ীদের মূল্য তালিকা প্রদর্শনের নির্দেশনা প্রদান করা হয়।

বাজার তদারকিতে সহায়তা করেন এসআই মোঃ মনিরুল ইসলামের নেতৃত্বে কুয়াকাটা ট্যুরিস্ট পুলিশের একটি টিম , স্থানীয় প্রশাসন, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ ও দোকান মালিক সমিতির নেতৃবৃন্দ।

এ সময় উপস্থিত ভোক্তা ও ব্যবসায়ীদের মাঝে লিফলেট ও প্যাম্পলেট বিতরণ করা হয়।
জনস্বার্থে এ ধরণের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.