নেপালে মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারপার্সনের সাথে সার্ক মানবাধিকার মতবিনিময়

ডেস্ক রিপোর্ট-

 

নেপাল মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারপার্সনের সাথে সার্ক মানবাধিকার ফাউন্ডেশনের মহাসচিব অধ্যাপক মাওলানা আবেদ আলী মতবিনিময় করেন,
“দক্ষিণ এশিয়ার মানবাধিকার পরিস্থিতি মোড়ল দেশের তুলনায় সমুন্নত”।

সাধারণ মানুষের মৌলিক অধিকার নিশ্চিত করা রাষ্ট্রের দায়িত্ব। রাষ্ট্র কোনভাবেই মানবাধিকার লঙ্ঘনের অপরাধে অভিযুক্ত হতে পারে না। রাষ্ট্র চাইলে প্রতিটি মানুষের অধিকার নিশ্চিত করা সহজ বিষয়। অথচ দেখা যায়, প্রশাসনের কিছু বিচ্ছিন্ন ঘটনার কারণে সমগ্র রাষ্ট্রযন্ত্র প্রশ্নবিদ্ধ হয়। এতে বিশ্বের মাঝে দেশের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন হয় যা অত্যন্ত দুঃখজনক ও অনাকাঙ্ক্ষিত। ব্যক্তির অপরাধের দায় রাষ্ট্র নিতে পারে না। তবে অপরাধের শাস্তি নিশ্চিত করা রাষ্ট্রের দায়িত্ব। দক্ষিন এশিয়ার দেশসমূহে মানবাধিকার লঙ্ঘনের কিছু বিচ্ছিন্ন ঘটনা ঘটে যা খুবই নগণ্য। সার্বিক বিবেচনায় দক্ষিণ এশিয়ার মানবাধিকার পরিস্থিতি মোড়ল দেশের তুলনায় সমুন্নত বলে উপরোক্ত মন্তব্য করেন নেপালের মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারপার্সন টপ বাহাদুর মাগার।

অদ্য ১৪ জুলাই ইলেকশন মনিটরিং ফোরামের চেয়ারম্যান ও সার্ক মানবাধিকার ফাউন্ডেশন-এর মহাসচিব অধ্যাপক মোহাম্মদ আবেদ আলী নেপাল সফরকালে নেপালের মানবাধিকার কমিশন ভবনে কমিশনের চেয়ারপার্সনসহ অন্যান্য সদস্যদের সাথে এক মতবিনিময় সভায় অংশগ্রহণ করেন। এতে উপস্থিত ছিলেন, সার্ক মানবাধিকার ফাউন্ডেশন নেপালের সভাপতি ও সাবেক সংসদ সদস্য নজির মিয়া, সাধারণ সম্পাদক ও মুসলিম কমিশনের সদস্য এডভোকেট মাহামাদীন আলী, নেপালের সাবেক মন্ত্রী হাকিকুল্লাহ মুসলিম, নেপালের সাবেক সংসদ সদস্য জুনায়েদ আনছারি, সার্ক মানবাধিকার ফাউন্ডেশনের কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি ও নিউজ বিএনএ -এর সম্পাদক মিজানুর রহমান মজুমদার, কেন্দ্রীয় পরিচালক বঙ্গবন্ধু গবেষক ড. মুহম্মদ মাসুম চৌধুরী।

Leave a Reply

Your email address will not be published.