কনে না নিয়েই ফিরে গেলেন পুলিশ বর! প্রশাসনের হস্তক্ষেপে বন্ধ হল বাল্যবিয়ে

স্টাফ রিপোর্টার॥ শ্রীমঙ্গলে উপজেলা প্রশাসনের হস্তক্ষেপে বন্ধ করা হয়েছে বাল্যবিয়ে। এই বিয়ের কনে উপজেলার সাতগাঁও উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির এক শিক্ষার্থীর (১৬)। আর বর ছিলেন পুলিশের কনস্টেবল সঞ্জয় অলমিক (২৬)। সঞ্জয়ের বাড়ী কুলাউড়া উপজেলার চাতলাপুর চা বাগানে। তিনি নবীগঞ্জ থানার পুলিশ কনস্টেবল পদে কর্মরত আছেন।
১৩ মে শুক্রবার উপজেলার সাতগাঁও ইউনিয়নের মাকড়ীছড়া গ্রামে এই বিয়ের আয়োজন করা হয়। পরে খবর পেয়ে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) সদ্বীপ তালুকদার ওই বাড়িতে গিয়ে এই বাল্যবিয়ে বন্ধ করেন।
সহকারী কমিশনার (ভূমি) সদ্বীপ তালুকদার বলেন, বিয়ের প্রস্তুতির খবর পেয়ে আমরা সেখানে গিয়ে দেখি একটি প্যান্ডেলে এনগেজম্যান্টের আয়োজন চলছিলো। তখন আমরা মেয়ের মা-বাবা ও ছেলে পক্ষের লোকজনদের বুঝিয়ে মেয়ের বিয়ের বয়স না হওয়া পর্যন্ত মেয়েকে বিয়ে না দেয়ার একটা অঙ্গীকারনামা নেইঅ পাশাপাশি মেয়ের পড়ালেখা চালিয়ে যাওয়ার নির্দেশ দেই।
নবীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ডালিম আহমেদ জানান, সঞ্জয় অলমিক নবীগঞ্জ থানায় কনস্টেবল পদে চাকরি করেন। বর্তমানে তিনি ছুটিতে আছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.