শ্রীমঙ্গলের ভানুগাছ রোডে দুর্ভোগের যেন শেষ নেই, মরণফাঁদ

শ্রীমঙ্গল প্রতিনিধি–

শ্রীমঙ্গলের ব্যস্ততম সড়ক ষ্টেশন রোডে বিশাল গর্তে ট্রাকের চাকা আটকে থাকতে দেখা যায়।

অনেকেরই অভিযোগ রাস্তার কাজেও অনিয়ম হচ্ছে।
মানা হচ্ছে না কোন নিয়মকানুন।

শ্রীমঙ্গল-কমলগঞ্জ সড়কের কিছু অংশ নিয়ে চরম দুর্ভোগে স্থানীয় বাসীন্দা ও ব্যবসায়ীরা…

পর্যটন নগরী শ্রীমঙ্গলে পর্যটকদের ব্যবহৃত অন্যতম শ্রীমঙ্গল-কমলগঞ্জ সড়ক….. খাদা খন্দ আর পানিতে নিমজ্জিত এই সড়কের ব্যবসায়ীরাও পরেছেন বিপাকে।
এই সড়কের উন্নয়ন কাজ শুরু হলেও নানান জটিলতায় তা সম্পন্ন করতে সময় দীর্ঘায়িত হচ্ছে….

সব রাস্তা ঠিক হলেও শহরের ভিতরের ভানুগাছ সড়ক, ষ্টেশন রোড, চৌমুহনার আশেপাশের রাস্তার অবস্থা খুবই খারাপ। ছোট বড় খাদাখন্দে পানি জমে রয়েছে, প্রায়ই রাস্তার বড় বড় গর্তে গাড়ী আটকে যাচ্ছে। রাস্তার একপাশে ভালো হলে অপর পাশে খাদাখন্দে ভরা ফলে জ্যাম লেগেই থাকে। শহরের পেট্রোল পাম্প হতে রেলগেইট, জালালীয়া রোড, সরকারি হাসপাতাল, নীলকন্ঠ চা কেবিন পৌঁছাতে দিতে হয় দীর্ঘ সময়। ৫/১০ মিনিটের এই রাস্তা পাড়ি দিতে আধা ঘন্টা থেকে ১ ঘন্টা লেগে যায় জ্যামের কারণে। জ্যামে আটকে থাকতে দেখা যায় রোগীবাহী এম্বুলেন্সও। দুর্ভোগের যেন শেষ নেই।

এবার ঈদে শ্রীমঙ্গল পর্যটক না আসার এটাও একটা কারন মনে করছেন স্থানীয়রা। কবে নাগাদ এই ভোগান্তি থেকে মুক্ত হবে শ্রীমঙ্গলবাসী সেটিও অজানা। রাস্তার পাশেই প্রায় দেড় দুই ফুট লোহার রড় (ডালাই কাজে ব্যবহৃত) দন্ডায়মান দেখা যায়। যাতে যেকোন মুহুর্তেই ঘটতে পারে বড় ধরনের দুর্ঘটনা।

মাঝখানে কিছু স্থান খালি রেখে আবার অন্যস্থানে রাস্তা সংস্কারের কারন অনেকেরই অজানা? শুধু যাতায়াতকারী বা পর্যটকরা ই নয়, চরম ভোগান্তিতে আছেন এই সড়কের ব্যবসায়ীরা। নিত্য ব্যবহার্য এই রাস্তাটির সংস্কার কাজ দ্রুত সম্পন্ন করার জোর দাবী শ্রীমঙ্গলবাসী ও সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীদের। এব্যাপারে সবাই সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সদয় সুদৃষ্টি কামনা করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.